বাংলাদেশ-পাকিস্তানের ‘অসম’ লড়াই আজ

মার্চ ৩০, ২০১৪ ৪:২৪ অপরাহ্ণ

টি-২০ ম্যাচে কোন দিক দিয়েই পাকিস্তানের ধারে কাছে যাবার উপায় নেই বাংলাদেশের। এ পর্যন্ত ৩৭টি টি-২০ ম্যাচ খেলা বাংলাদেশ প্রথম বার পাকিস্তানের মুখোমুখি হয় ২০০৭ সালের টি-২০ বিশ্বকাপে। তখন থেকে শুরু করে সর্বশেষ ২০১২ সালে শ্রীলঙ্কাতে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পরাজয় বরণ করে বাংলাদেশ দল।

২০০৭ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত মোট পাকিস্তানের সঙ্গে খেলা মোট ছয়টি টি-২০ ম্যাচের সবগুলোতেই হেরেছে বাংলাদেশ। তাই মিরপুরে রোববারে ম্যাচে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের লড়াইকে ‘অসম’ বললে খুব বেশি বলা হবে না। সব পরিসংখ্যানেই এখন পর্যন্ত ফেভারিট দল- পাক শিবির।

২০০৭ সালে কোয়ালিফাই পর্বে পাকদের বিপক্ষে বাংলাদেশ হেরেছিল ৩০ রানে। পাকদের সাত উইকেটে ১৯১ রানের জবাবে বাংলাদেশ করেছিল সাত উইকেটে ১৬১ রান। এরপর মূল পর্বে হেরেছে চার উইকেটে। বাংলাদেশের করা ১৯.৪ ওভারে ১৪০ রানের জবাবে পাকরা করেছে ১৯ ওভারে ছয় উইকেটে ১৪১ রান। ২০০৮ সালে পাক সফরে একমাত্র টি-২০ ম্যাচে করাচি ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে পাক শিবির করেছে পাঁচ উইকেটে ২০৩ রান। আর বাংলাদেশ অলআউট ১৬ ওভারে ১০১ রানে। হেরেছে ১০২ রানে!

এরপর ২০১০ সালের টি-২০ বিশ্বকাপে হেরেছে ২১ রানে। পাকরা করেছে তিন উইকেটে ১৭২ রান। বাংলাদেশ জবাবে অলআউট হয়েছে সাত উইকেটে ১৫১ রান করে। ২০১১ সালে বাংলাদেশ সফরে একমাত্র টি-২০ ম্যাচে পাকরা জিতেছে ৫০ রানের ব্যবধানে। পাকিস্তানের সাত উইকেটে ১৩৫ রানের জবাবে বাংলাদেশ নয় উইকেটে ২০ ওভারে করেছিল সেদিন মাত্র ৮৫ রান!

২০১২ সালের টি-২০ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ হারে আট উইকেটে। বাংলাদেশে ছয় উইকেটে ১৭৫ রানের বিপরীতে পাক শিবির সেদিন দুই উইকেটে ১৮.৪ ওভারে করেছিল ১৭৮ রান।

Share on Facebook
সম্পাদক মন্ডলীর চেয়ারম্যান ॥ মোঃ দেলোয়ার হুসেন শরীফ, সম্পাদক ॥ আনোয়ার হোসেন
উপজেলা মোড়, টেনিস কোর্ট রোড, ৫৯ মাষ্টার বাড়ি, ঢাকা।
সংবাদঃ ০১৭১১৩২৪৬৬০ বিজ্ঞাপনঃ ০১৯১১২৪৫৬১৬
ই-মেইল ॥ news@playingnews.com
খেলা পাগল মানুষদের কথা চিন্তা করেই দেশী-বিদেশী সকল ...
খেলাধূলার খবর